প্রধানমন্ত্রীর শিক্ষা সহায়তা ট্রাস্ট গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ১৮ এপ্রিল ২০১৮

লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য

১. রূপকল্প: 

অর্থের অভাবে শিক্ষার সুযোগ বঞ্চিত দরিদ্র মেধাবী শিক্ষার্থীদের শিক্ষা নিশ্চিতকরণ।

 

২. অভিলক্ষ্য:

৬ষ্ঠ শ্রেণি থেকে স্নাতক (পাস) ও সমমান পর্যন্ত দরিদ্র ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তি প্রদানের মাধ্যমে শিক্ষার্থী ঝরে পড়ার হার রোধ, বাল্যবিবাহ রোধ এবং শিক্ষার গুণগত মান নিশ্চিতকরণের মাধ্যমে দরিদ্র মেধাবী শিক্ষার্থীদের শিক্ষা নিশ্চিতকরণ।

 

৩. কৌশলগত উদ্দেশ্যসমূহ:

৩.১  ৬ষ্ঠ শ্রেণি থেকে স্নাতক/সমমান পর্যন্ত দরিদ্র ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তি প্রদান।

৩.২  ট্রাস্ট ফান্ড সংগ্রহে সরকারের পাশাপাশি বিত্তশালী ও বিভিন্ন অর্থলগ্নি প্রতিষ্ঠানকে সম্পৃক্তকরণ।

৩.৩  শিক্ষার মানোন্নয়ন ও ঝরে পড়া রোধ করা।

 

৪. কার্যাবলি:

    ক) স্নাতক (পাস) ও সমমান পর্যায়ের শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তি প্রদান।

    খ) বাল্যবিবাহ রোধকল্পে জেলা ওয়ারী কর্মশালা অায়োজন।

    গ) “দারিদ্রপীড়িত পরিবারের অদম্য মেধাবী শিক্ষার্থীদের আর্থিক সহায়তা প্রদান নীতিমালা, ২০১৫” মোতাবেক আর্থিক অনুদান প্রদান।

    ঘ) দরিদ্র মেধাবী ছাত্র/ছাত্রীর শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভর্তি নিশ্চিতকরণের আর্থিক সহায়তা নীতিমালা, ২০১৫” মোতাবেক আর্থিক অনুদান প্রদান।     

    ঙ) দুর্ঘটনার কারণে গুরুতর আহত দরিদ্র মেধাবী ছাত্র/ছাত্রীর এককালীন অার্থিক অনুদান প্রদান সংক্রান্ত নীতিমালা, ২০১৫ মোতাবেক আর্থিক অনুদান প্রদান।

    চ) ট্রাস্ট ফান্ড সংগ্রহের নিমিত্ত ব্যবসায়ী ও ব্যাংক মালিকদের সাথে মাননীয় অর্থমন্ত্রীর সভাপতিত্বে সভা আহবান ও অর্থ সংগ্রহ।  


Share with :

Share with :

Facebook Facebook